কোহলি-আমিরের ‘ভালোবাসা’ চলছেই

ক্রীড়া ডেস্ক: বিরাট কোহলি ও মোহাম্মদ আমির—বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা দুই ক্রিকেটার। একজন ব্যাটসম্যান, আরেকজন বোলার। এর চেয়েও গুরুত্বপূর্ণ একজন ভারতীয়, অন্যজন পাকিস্তানি। দুজনের মধ্যে দা-কুমড়া সম্পর্ক না হোক, লড়াই-লড়াই একটা ভাব তো থাকা উচিত। কিন্তু এ দুজনের মধ্যে যে তেমন কিছুই দেখা যাচ্ছে না! দুজনেই একে অপরকে প্রশংসায় ভাসিয়ে দিচ্ছেন সুযোগ পেলেই। কদিন আগেই মোহাম্মদ আমিরকে নিয়ে আরেক আমিরের (নায়ক আমির খান) অনুষ্ঠানে প্রশংসায় মেতেছিলেন কোহলি। সেখানে নিজের দেখা সেরা বোলারের নামটা জানিয়েছেন এভাবে, ‘বর্তমান সময়ের বোলারদের মধ্যে মোহাম্মদ আমিরই সবচেয়ে বেশি ভুগিয়েছে। বিশ্বের প্রথম দু-তিনজন বোলারের একজন সে। আমার ক্যারিয়ারে মুখোমুখি হওয়া সবচেয়ে কঠিন বোলার। অসাধারণ, খুবই ভালো বোলার ও।’এমন প্রশংসার উত্তর দিতে সময় নেননি আমিরও। ক্রিকইনফোকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘সত্যি বলতে, ভালোই লাগে (এমন প্রশংসা শুনতে)। ভালো খেলার পুরস্কার এটা। কোনো সন্দেহ নেই, কোহলি খুব ভালো ব্যাটসম্যান এবং তার প্রশংসা আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দেয়। আর নিজের ওপর বিশ্বাস করতে পারলে বোলিং আরও ভালো হয়। আমি বহুবার বলেছি, বর্তমানে সে-ই আমার প্রিয় ব্যাটসম্যান। সে খুব শক্ত প্রতিপক্ষ এবং তার বিপক্ষে খেলতে হলে আপনাকেও সে রকম দৃঢ় হতে হবে।’ শুধু পারস্পরিক সম্মানেই যে তাঁদের সম্পর্ক থেমে নেই, সেটা জানিয়েছেন আমির। সুযোগ পেলেই কোহলির কাছ থেকে উপহার বুঝে নেন পাকিস্তানের এই পেসার, ‘আমাদের মধ্যে বোঝাপড়া খুব ভালো। চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে আমাকে একটা ব্যাট দিয়েছে, বিশ্ব টি-টোয়েন্টিতেও দিয়েছিল। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপেও একসঙ্গে খেলেছি আমরা। আমি যে বছর খেলছি, কোহলি সেবার ভারতের অধিনায়ক ছিল। আমাদের মধ্যে বোঝাপড়াটা তাই বেশ ভালো। ওর ব্যাট আমার খুব পছন্দ, তাই আমি সব সময় চেয়ে নিই। না চাইলেও আমাকে উপহার দেয় সে। কোনো সন্দেহ নেই, আমার কাছে কিছু চাইলে, অবশ্যই সেটা দেব।’ তবে এমন সম্পর্কের পরও মাঠে কোহলিকে একবিন্দু ছাড় দেন না আমির। কারণ, মাঠে নামলে যে বন্ধুত্বের চেয়ে দেশের জয়টাই গুরুত্বপূর্ণ সব ক্রিকেটারের কাছে, ‘মাঠে কোনো বন্ধুত্ব থাকে না। সবাই নিজ নিজ দেশের প্রতিনিধিত্ব করে। সবাই দেশের জন্য সর্বোচ্চ দেওয়ার চেষ্টা করে। মাঠে পরিকল্পনা থাকে ওকে যত দ্রুত সম্ভব আউট করার। রান তাড়া করায় ও অসাধারণ, চাপে সব সময় ভালো করে। তাই ওকে আউট করা মানেই ম্যাচ পঞ্চাশ ভাগ জিতে যাওয়া। কোহলি খুব ভালো ক্রিকেটার। আমি আশা করি, সে তাঁর দেশ ও ভক্তদের জন্য আরও অনেক রেকর্ড গড়বে।’ তাঁদের দুজনের মধ্যে এমন সম্পর্ক দুই দেশের দর্শকের মধ্যেও দেখতে চান আমির, ‘ভারতীয়রা ক্রিকেট নিয়ে খুব আবেগপ্রবণ, পাকিস্তানিরাও তাই। চ্যাম্পিয়নস ট্রফির কথাই ভেবে দেখুন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে যুদ্ধ বেধে গিয়েছিল। এটা ঠিক নয়। ভক্তদের উচিত ক্রিকেটকে সমর্থন করা। এতে দুই দেশের জন্যই ভালো।’

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১