তানোর জনতা ব্যাংকে গ্রাহক হয়রানি

তানোর প্রতিনিধি : রাজশাহীর তানোর জনতা ব্যাংকে গ্রাহক হয়রানি ও নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। আবার অধিকাংশ সময় গ্রাহকগণ ডিজিটাল সেবা পাচ্ছেন না। এছাড়াও শাখা ব্যবস্থাপক নাজিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে গ্রাহকদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ, পদে পদে অনৈতিক সুবিধা আদায় করাসহ নানা অভিযোগ রয়েছে। এদিকে গ্রাহকগণ কাঙ্খিত সেবা না পেয়ে জনতা ব্যাংক থেকে মূখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন বলে একাধিক মূত্র নিশ্চিত করেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গোল্লাপাড়া বাজারের প্রসিদ্ধ এক ব্যবসায়ী বলেন, জনতা ব্যাংক তানোর শাখায় বড় ধরণের আর্থিক লেনদেন,ঋণ প্রদানসহ নানা কাজে গ্রাহকদের জিম্মি করে অবৈধ অর্থ আদায় এবং সব ধরণের লেনদেনে (রেভিনিউ স্ট্যাম্প) রাজস্ব টিকিটের নামে নিদ্রিষ্ট হারে অর্থ হাতিয়ে নেয়া হয়। তিনি বলেন, রাজস্ব টিকিটের কথা বলে গ্রাহকদের সঙ্গে প্রতারণা করে তাদের কাছ থেকে প্রতিমাসে হাজার টাকা আদায় করা হলেও সরকারের রাজস্ব খাতে জমা না দিয়ে এসব টাকা ম্যানেজার লোপাট করছে। প্রত্যক্ষদর্শী সুত্র জানায়, চলতি বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর সোমবার তানোর পৌর এলাকার বাসিন্দা ও ব্যবসায়ির সঙ্গে ব্যাংক ম্যানেজারের ঘুষ গ্রহণে দর কষাকষি নিয়ে বাকবিতন্ডতার সৃষ্টি হলে ব্যাংকের মধ্যে চরম উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। স্থানীয় এক ব্যবসায়ি নেতার হস্তক্ষেপে পরবর্তিতে বিষয়টি সমাধান করা হয়। এ ব্যাপারে এলাকাবাসী সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে জনতা ব্যাংক তানোর শাখার (শাখা ব্যবস্থাপক) ম্যানেজার নাজিম উদ্দিন এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, একটু-এদিক-সেদিক হলেই গ্রাহকরা সাংবাদিকদের কাছে এসব উল্টা-পাল্টা ও মিথ্যা অভিযোগ করে থাকে যেটা আসলে উচিৎ নয়।

 

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১