পাবনায় যাত্রীবাহী দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৭

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনা-ঢাকা মহাসড়কে যাত্রীবাহী দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৭ জন নিহত ও অন্তত ৪০ জন আহত হয়েছেন। আজ রোববার দুপুর আনুমানিক একটার দিকে পাবনা-ঢাকা মহাসড়কের বহাল বাড়িয়া নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ এখনো পর্যন্ত তিন জনের নাম জানতে পেরেছে। তারা হলেন, রিপন (৪২), আবুল কালাম (৪২) আয়াত আলী (৫৫)। বাকিদের নাম-পরিচয় পাওয়া যায়নি। পাবনার আতাইকুলা থানার ওসি মাসুদ রানা জানান, পাবনা থেকে ছেড়ে যাওয়া ঢাকাগামী সুমি ট্রাভেলসের একটি যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে দুপুরে বহাল বাড়িয়া নামক স্থানে উল্লাপাড়া থেকে পাবনার উদ্দেশে আসা শাহ নকিব নামের আরেকটি যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই একটি বাসের চালকসহ ৫ জন মারা যান। আহত অন্তত ৪২ জনকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পাবনা জেনারেল হাসপাতালসহ স্থানীয় বিভিন্ন হাসাপাতালে ভর্তি করে পুলিশ। এদের মধ্যে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুই যাত্রী মারা গেছেন বলে জানিয়েছেন পাবনা সদর থানার ওসি আবদুর রাজ্জাক। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের নামপরিচয় জানাতে পারেননি তিনি। পাবনা-ঢাকা মহাসড়কের মাধপুর হাইওয়ে পুলিশের কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, এই দুর্ঘটনার পর কিছু সময় যান চলাচল বন্ধ ছিল। তবে ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় বাস দুটিকে মহাসড়ক থেকে সরিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে পাবনা ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক ইউনুস আলী বলেন, ‘গতি বেশি থাকায় সংঘর্ষের পর বাস দুটি দুমড়ে-মুচড়ে গেছে। বাসের নিচে এবং ভেতরে কাউকে পাওয়া যায়নি।’

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১