বাঘার মনিগ্রামে গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

বাঘা প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাঘায় সদ্য বিবাহিত এক গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃত গৃহবধুর নাম বৃষ্টি খাতুন। আজ মঙ্গলবার সকালে উপজেলার মনিগ্রাম এলাকায় বৃষ্টির শশুরবাড়ি থেকে পুলিশ এ লাশ উদ্ধার করে। পুলিশের ধারণা, বৃষ্টিকে হত্যার পর লাশের গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলিয়ে রাখা হয়। এ ঘটনায় তার স্বামী মাহাবুরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ। জানা গেছে, গত এক মাস পূর্বে মনিগ্রাম এলাকার নবির উদ্দিনের ছেলে মাহাবুর রহমান(২৬)এর বিয়ে হয় পার্শ্ববর্তী চারঘাট উপজেলার নন্দনগাছি গ্রামের হামিদুর রহমানের মেয়ে বৃষ্টি(১৫)এর সাথে। বৃষ্টির বোন দোলেনা খাতুন অভিযোগ করে বলেন, বিয়ের পর থেকে তার বোন এই বাড়িতে খুব কষ্টে ছিল। তাকে বাবার বাড়ির লোকজনের সাথে ঠিকমত যোগাযোগ করতে দিত না মাহাবুর। তবে মাহাবুর দাবি করেছেন, এ অভিযোগ সঠিক নয়। তার স্ত্রী অন্য একটি যুবকের সাথে মোবাইলে কথা বলত। বিষয়টি জানার পর সে গোপনে স্ত্রীর মোবাইলের কল রেকর্ডার চালু করে রাখে এবং সর্বশেষ সোমবার দিবাগত রাতে এ বিষয় নিয়ে সে-তার স্ত্রীর প্রতি ক্ষীপ্ত হয়। আর এ রাগে ভোররাতে তার স্ত্রী আত্মহত্য করে। বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলী মাহামুদ জানান, এই মৃত্যুর পেছনে যথেষ্ট রহস্য রয়েছে। যে স্পটে ওড়না বেঁধে গলায় ফাঁস দেয়া হয়েছে সেখানে ওড়না বাঁধা বৃষ্টির পক্ষে সম্ভব নয়। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের ধারণা, স্ত্রীর পরকীয়া সইতে না পেরে অতিরিক্ত রাগে তার স্বামী তাকে খুন করতে পারে। তবে ময়না তদন্তের পর এটি সঠিকভাবে বলা যাবে বলে ওসি জানান।

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১