বাঘায় ঘূর্ণিঝড়ে দুই ইউনিয়ন তছনছ, নিহত ১

বাঘা প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাঘায় আকষ্মিক ঘূর্ণিঝড়ে তছনছ হয়ে গেছে দুই ইউনিয়নের ৮ গ্রাম। ভেঙে গেছে অসংখ্য গাছপালা, উড়ে গেছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও মন্দিরসহ প্রায় দুইশ পরিবারের টিনের চালা। ঝড়ে মারা গেছেন সাদের আলী (৫৫) নামের এক ব্যক্তি। আজ মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার দুই ইউনিয়ন আড়ানী ও বাউসার উপর দিয়ে এ ঝড় বয়ে যায়। ঘটনার পর এলাকা পরিদর্শন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা। স্থানীয়রা জানান, আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে মুষলধারে বৃষ্টি শুরু হয়। দুপুর ১টার দিকে আকষ্মিকভাবে ঘূর্ণিঝড় বয়ে যায় উপজেলায় আড়ানী ইউনিয়নের হরিপুর, বেড়েরবাড়ি, ঝিনা, নুরনগর, গোচর ও খয়ের মিল এবং বাউসা ইউনিয়নের দিঘা ও খাগরবাড়িয়া এলাকার উপর দিয়ে। এ ঝড়ের কবলে বাইসাইকেল থেকে পড়ে মারা গেছেন আড়ানী ইউনিয়নের গোচর গ্রামের মৃত আবু তাহেরের ছেলে সাদের আলী। বাউসা ইউনিয়ের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিক জানান, প্রায় ৪ কিলোমিটার এলাকার উপর দিয়ে ঝড় বয়ে যায়। এতে ২’শ পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়াও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জমির ফসলসহ অসংখ্য গাছপালা। আড়ানী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রফিক জানান, আকষ্মিক ঘূর্ণিঝড়ে তার এলাকার ৬টি গ্রাম তছনছ হয়ে গেছে। রাস্তায় গাছপালা ভেঙে যাওয়ার কারণে যান চলাচল করতে পারছে না। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো এখন খোলা আকাশের নিচে আশ্রয় নিয়েছেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা জানান, খবর পাওয়া মাত্র এলাকায় গিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। বিষয়টি জেলা প্রশাসককে জানিয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্তরা যাতে দ্রুত সরকারি সাহায্য পায় সেই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। স্থানীয় এমপি ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম জানিয়েছেন, আকষ্মিক ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তরা যাতে ভোগান্তির মধ্যে না পড়েন সেজন্য তিনি প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি নিজেও ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে আছেন।

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০