ভর্তি পরিক্ষায় রাবি প্রশাসনের যেসব বিশেষ ব্যবস্থা থাকছে

রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে আগামী ২২-২৬ অক্টোবর। ভর্তি পরিক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য পরিক্ষা চলাকালীন সময় রাবির অভ্যন্তরে ট্রাফিক নিয়েন্ত্রন, হোটেলগুলোতে খাবারের মান নিয়োন্ত্রন, ভ্রাম্যমান আদালত, পুলিশ কন্ট্রোল রুম স্থাপন, সচেতনতা সৃষ্টির জন্য মাইকিং, রিক্সা ভাড়া নির্ধারণ ও রিক্সা চালকদের জন্য বিশেষ পোশাকসহ বেশকিছু পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে ট্রাফিক নিয়েন্ত্রনের বিষয়ে প্রক্টর লুৎফর রহমান জানান মেইন গেট দিয়ে কোনো যানবাহন প্রবেশ করতে পারবে না শুধু বের হতে পারবে। কাজলা গেট দিয়ে প্রবেশ করে প্রশাসন ভবন হয়ে প্রধান ফটক দিয়ে বের হওয়া যাবে। আবার এই গেট দিয়ে প্রবেশ করে আবাসিক এলাকা সংলগ্ন রাস্তা দিয়ে রহমতুন্নেছা হল পর্যন্ত যানবাহন চলাচল করতে পারবে। বিনোদপুর গেট দিয়ে প্রবেশ করে মতিহার, শের-ই বাংলা হল হয়ে প্রধান ফটক দিয়ে বের হতে পারবে। আবার এই গেট দিয়ে প্রবেশ করে কেন্দ্রীয় মন্দির হয়ে বঙ্গবন্ধু হলের সামনে দিয়ে প্রধান ফটক দিয়ে বের হওয়া যাবে। চারুকলা গেট দিয়ে প্রবেশ করে শহীদ হবিবুর রহমান হল হয়ে শহীদ শামসুজ্জোহা হল দিয়ে বদ্ধভূমি রাস্তা দিয়ে এবং নবাব আব্দুল লতিফ হলের সামনে দিয়ে বঙ্গবন্ধু হল হয়ে প্রধান ফটক দিয়ে বের হওয়া যাবে। স্টেশন বাজারের গেট দিয়ে প্রবেশ করে একইভাবে মেইন গেট দিয়ে বের হতে পারবে। জালিয়াত চক্র যাতে তৎপর না হতে পারে বা ভর্তি পরীক্ষায় কোনো রকম অসদুপায় অবলম্বন ঠেকাতে গোয়েন্দা এবং পুলিশ বাহিনী ক্যাম্পাস ও আশপাশের এলাকা কড়া নজরদারিতে রাখার নির্দেশ দিয়েছি। তাছাড়া এদেরকে শাস্তির আওতায় আনতে ভর্তি পরিক্ষার দিনগুলোতে একাধিক ভ্রাম্যমাণ অদালত কাজ করবে। তাছাড়াও কোনো শিক্ষার্থী ভর্তি হওয়ার পর যদি প্রমাণ হয় সে অসৎ উপায় অবলম্বন করে ভর্তি হয়েছে তাহলেও তার ভর্তি বাতিল করে দেওয়া হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে পুলিশের তিনটি কন্ট্রোলরুম করা হচ্ছে। একটি সিনেট ভবনের সামনে, অন্যদুটি বিনোদপুর ও কাজলা গেটে।’ সেই সাথে ভর্তিচ্ছুদের সহযোগিতার জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে হেল্প ডেস্ক থাকবে বলে জানিয়েছেন প্রক্টর। ‘শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র শিক্ষক মিলনায়তনটি শুধুমাত্র নারী অভিভাবকদের জন্য এবং কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনটি নারী ও পুরুষ উভয় অভিভাবকই বসতে পারবেন। পরীক্ষা চলাকালীন বিশৃঙ্খলা এড়ানোর জন্য এবং ভর্তিচ্ছুদের অভিভাবকদের মানবিক দিকটি বিবেচনা করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন প্রথমবারের মতো এ পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে। ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে ক্যাম্পাসের খাবারের দোকানে নিত্যদিনের চেয়ে বেশি মূল্যে খাবার বিক্রি করতে পারবেন না। ২১শে অক্টোবরের মধ্যে খাবারের একটি মূল্য তালিকা প্রক্টর দফতরকে অবহিত করে অনুমতি গ্রহণের জন্য বলা হয়েছে।’খাবার বেশি দামে বিক্রির অভিযোগ পেলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে প্রশাসন। রিক্সা চালকেরা ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে ভাড়া নিয়ে যাত্রির সাথে অযথা ঝামেলা না সৃষ্টি করতে পারে সে জন্য ক্যাম্পাসে রিক্সা ভাড়া নির্ধররণ, রিক্সা চালকদের মাঝে বিনা মূল্যে বিশেষ ধরণের পোশাক বিতরণ করেছে প্রক্টর। এছাড়াও ভর্তি পরিক্ষার সময় ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী, অবিভাবক বা ভতিচ্ছুদের সাথে আসা এমন কোনো ব্যাক্তিকে র‌্যাগের মাধ্যমে মানসিক চাপ সৃষ্টি, অপমান-অপদস্ত করা, আতঙ্ক, ভয় বা সংশয়ের সৃষ্টি করা অথবা অপমান-অপদস্তের মাধ্যমে পরিচিত হওয়া এমন কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে কঠোর ব্যবস্থরা কথা জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১