মাদকব্যবসায়ীকে থানা থেকে ছাড়াতে সন্ত্রাসী রাব্বানীর রেকড ফাঁস (অডিওসহ)

পিঠ বাঁচাতে তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী যখন সাংবাদিক
মাদকব্যবসায়ীকে থানা থেকে ছাড়াতে সন্ত্রাসী রাব্বানীর রেকড ফাঁস

স্টাফ রিপোর্টার : পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের বিরুদ্ধে প্রতিনিয়ত মাদক ব্যবসায়ীদের কাছথেকে মাসিক মাসোহারা নেয়ার বিষয়ে খবরের পাতায় ও অনলাইনে দেখা গেলেও সাংবাদিকের বেশে চোর,সন্ত্রাসী, ও ছিনতাইকারীরা মাদকব্যাবসায়ীদের সেল্টারের খবর তেমন চোখে পড়ে না। তবে এমন মাদক সিন্ডিকেটের এক মাদকব্যবসায়ীকে থানা থেকে ছাড়াতে তালাইমারী এলাকার কথিত সাংবাদিক সন্ত্রাসী রাব্বানীর একটি কল রেকড ফাঁস হয়েছে। তবে রেকর্ডটি কতদিন আগের তা জানা না গেলেও ধারনা করা হচ্ছে রেকর্ডটি গত বছরের।

রেকর্ডে শোনা যাচ্ছে, হাদিরমোড় এলাকার হাবুর ছেলে পূর্বের মাদক ব্যবসায়ী টনি এক মাদক ব্যবসায়ীকে ছাড়াতে তালাইমারী অক্ট্রোয় মোড় এলাকার মৃত মোসলেম উদ্দিন এর ছেলে কথিত সাংবাদিক সন্ত্রাসী রাব্বানীর কথামতো মতিহার থানায় জান । সেখানে মাদকব্যবসায়ীর পরিবারের সাথে ৩৫,০০০/পয়ত্রিশ হাজার টাকা নিয়ে মাদকব্যবসায়ীকে থানা থেকে ছেড়ে দিতে সাংবাদিক সন্ত্রাসী রাব্বানীর কাছে ফোন দেয়। এ সময় রাব্বানী সে সময়ে মতিহার থানায় কর্মরত এ.এস আই মিজানকে বলেন ৩৫,০০০/পয়ত্রিশ হাজার টাকা নিয়ে তাকে ছেড়ে দেন।পরে বেশি মালসহ আবার ধরা যাবে। এ সময় সেই এ.এস.আই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)কে বিষয়টি জানাতে চাইলে রাব্বানী ওসিকে বিষয়টি বলতে হবেনা আপনি ছেড়ে দেন বলে বলতে শোনা যায়।

জানা যায়, রাজশাহী মহানগরীর উপকণ্ঠ কাটাখালী থানা এলাকায় প্রতিনিয়ত মাদক বিক্রির হাট বসে। যেখানে মাদক নির্মূলে আরএমপি পুলিশ কমিশনার বন্ধপরিকর, সেখানে শুধু কতিপয় অসাধু পুলিশ সদস্যই নই মাসিক মাসোহারা নিয়ে মাদক ব্যবসার সঙ্গে প্রত্যাক্ষ পরোক্ষভাবে জড়িয়ে পড়েছেন সাংবাদিক নামধারী কথিত সাংবাদিক সন্ত্রাসী রাব্বানী বাহিনি। মাদকের এই ড্যান্ডিক্ষ্যাত এলাকায় মাদক উদ্ধার নাই বললেই চলে। আইওয়াশের নামে মাঝে মাঝে অভিযান করে নামে মাত্র উদ্ধার দেখান থানা পুলিশ। যে এলাকায় ডিবি পুলিশ ও র‌্যাব প্রতিনিয়তই অভিযান পরিচালনা করে মাদকের বড় বড় চালান আটক করলেও সেখানে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে জনমনে।

অডিওটি শুনতে নিচের লিংকে প্রবেশ করুন….

মাদকব্যবসায়ীকে থানা থেকে ছাড়াতে সন্ত্রাসী রাব্বানীর রেকড ফাঁস (অডিওসহ)

তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, শুধু আমাদের অসাধু পুলিশ সদস্যদেরই নই কিছু অসাধু সাংবাদিকদের মাসিক মাসোহারা দিয়ে এসকল মাদক ব্যাবসায়ীরা বুক ফুলিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করে যাচ্ছেন। তারা বলেন এমন এক সিন্ডিকেট চালায় তালাইমারী অক্ট্রোয় মোড় এলাকার মৃত মোসলেম উদ্দিন এর ছেলে মো: মাসুদ রানা রাব্বানী। তিনি অক্ট্রোয়মোড়ে একটি অনলাইন পত্রিকার অফিসের আড়ালে গড়ে তুলেন এই সিন্ডিকেট। একটি অফিস কক্ষ থেকে তিন তিনটি অনিবন্ধিত অনলাইন পত্রিকা খুলে বসেন। নিজ নামে সম্পাদক সেজে মূলত সন্ত্রসী মাসুদ রানা রাব্বানী www.rajshahirsomoy.com , www.motiharbarta.com এবং রাব্বানীর ভাই মোঃ আবু হেনা মোস্তফা জামানকে সম্পাদক ও প্রকাশক করে www.banglarbibek.com নামে অবৈধভাবে ৩ টি নিউজ পোর্টাল চালাচ্ছেন। বাংলাদেশ বিটিআরসির ও আন্তর্জাতিক ডোমেইন রেজিস্ট্রি অর্গানাইজেশনের সুত্র মোতাবেক মাসুদ রানা রাব্বানীর নামেই ৩টি নিউজ পোর্টাল মাসুদ রানা রাব্বানী অনলাইন থেকে নিজ নামেই কিনেছেন বলে প্রমানও পাওয়া গেছে।

পুলিশের আরেকটি সুত্র বলছেন, রাজশাহী মহানগরীর মতিহার থানার তালিকা ভুক্ত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী মাসুদ রানা রাব্বানী। হটাৎ করে তিনি সাংবাদিকের বেশে চলতে শুরু করেনে। এই রাব্বানীর বিরুদ্ধে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়রের গাড়িতে হামলা,নিজ বাড়িতে বোমা উদ্ধার,মাদকসহ সহ ১২ টির উপরে মামলা চলমান রয়েছে। রাজশাহীতে সরকার বিরোধী সকল কাজের সাথে এই রাব্বানীর নাম রয়েছে । এ ছাড়াও গত একবছর আগে ২২ সেপ্টেম্বর রাতে রাজশাহী মডেল প্রেসক্লাবে সন্ত্রাসী রাব্বানী ও তার সন্ত্রাসী বাহীনি আগ্নেআস্ত্র দেশিয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে রাজশাহী মডেল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হকের ওপরে হামলা চালানো মামলায় আটক হয়েছিলেন এই সন্ত্রাসী মাসুদ রানা রাব্বানী। এ ছাড়াও ১৭ই সেপ্টেম্বর ২০২২ইং তারিখে “দোয়েল টিভি”র সাংবাদিক গোলাম রশুল রনককে আগ্নে আস্ত্রের মুখে মারধর করে রাজশাহীর এক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্য বক্তব্য নিয়ে তা তাদের অনলাইনে প্রকাশ করেন। এ ঘটনায় সাংবাদিক গোলাম রশুল রনক রাজশাহী সি.এম.এম আদালতে ৬জনের নাম উল্লেখ করে আরো ৬/৭জনের নামে মামলা করেছেন।

আর এমপি পুলিশে এক উর্ধতন কর্মকর্তা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মতো বলতে হচ্ছে, সন্ত্রাসী ও মাদকের বিরুদ্ধে‘প্রত্যেক ঘরে ঘরে দুর্গ গড়ে তোলো’ । এদের বিরুদ্ধে আমাদের সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। সাংবাদিক,পুলিশ, জনপ্রতিনিধ যেই সন্ত্রাসী ও ও মাদকের সাথে জড়িত থাকবে তাদের নির্মূলে পুলিশ কাজ করে যাচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায়, মাদক, খুন, চুরি, ডাকাতিসহ সবধরনের অপরাধের বিরুদ্ধে আমরা নিরলসভাবে কাজ করছি। প্রত্যন্ত এলাকায়ও পুলিশের প্রতিনিধি রয়েছে, তারাও কাজ করে যাচ্ছেন। অতিদ্রুত এসকল তালিকা ভুক্ত্র সন্ত্রাসী সাংবাদিক নামধারীদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও জানান তিনি।

আগামী পর্বে এই সন্ত্রাসী কথিত সাংবাদিক রাব্বানীর কারা কারা মাদক সিন্ডিকেটের সাথে কাজ করছেন তার তথ্য,প্রমান (ভিডিও)সহ নিয়ে আসছি।

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১