মান্দায় সরকারি সম্পত্তির গাছ কর্তন করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান

মান্দা প্রতিনিধি: নওগাঁর মান্দা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জামায়াতনেতা অধ্যাপক আব্দুর রশিদের বিরুদ্ধে সরকারি সম্পত্তির গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ক্ষমতার অপব্যবহার করে ইতোমধ্যে ওই সম্পত্তি থেকে আমসহ বিভিন্ন প্রজাতির অর্ধ লক্ষাধিক টাকার গাছ কেটে নিয়েছেন তিনি। ঘটনায় স্থানীয় গিয়াস উদ্দিন মন্ডল নামে একব্যক্তি গনেশপুর-মৈনম ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন। অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, মৈনম মৌজার ১০৮২ নম্বর খতিয়ানের ২৩০১ নম্বর দাগে সম্পত্তির পরিমান ২৬ শতক। এ সম্পত্তি থেকে বেশকিছু আম গাছসহ বিভিন্ন প্রজাতির অন্তত ২০ টি গাছ কর্তন করে উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ, তার ভাই আব্দুল মজিদসহ একই এলাকার ইকবাল হোসেন। ঘটনায় মৈনম গ্রামের গিয়াস উদ্দিন মন্ডল বাদি হয়ে ইউনিয়ন ভূমি অফিসে অভিযোগ দাখিল করেছে। অভিযোগে গাছগুলোর আনুমানিক মূল্য ৫০ হাজার বলে উল্লেখ করা হয়েছে। অভিযোগকারী গিয়াস উদ্দিন মন্ডল জানান, ভিপি সম্পত্তি থেকে গাছ কর্তনের বিষয়টি মুঠোফোনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নুরুজ্জামানকে অবহিত করা হয়। ইউএনও তাৎক্ষনিকভাবে ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তাকে দিয়ে গাছ কর্তন বন্ধ ও কাটা গাছগুলো হেফাজতে নেওয়ার নির্দেশ দেন। ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, ওই দাগে ২৬ শতক জমির মধ্যে ভিপি সম্পত্তির পরিমান সাড়ে ৬ শতক। অবশিষ্ট সম্পত্তির মালিক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদসহ তার ওয়ারিসগণ। তিনি আরো জানান, ওই সম্পত্তির সীমানা নির্ধারন না করেই গাছগুলো কেটে নেওয়া সঠিক হয়নি। অবিলম্বে বিষয়টি তদন্ত করে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর দপ্তরে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে বলে তিনি জানান। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফয়সাল আহমেদ জানান, সংবাদ পেয়ে গাছ কাটা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ঘটনায় যথাযথভাবে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ইউএনও নুরুজ্জামান জানান, বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুর রশিদ গাছ কর্তনের বিষয় স্বীকার করে বলেন, ২০টি নয় ৪টি আম গাছ কেটে নেওয়া হয়েছে। তবে, সীমানা নির্ধারন না করে এভাবে গাছগুলো কাটা তার ভুল হয়েছে বলে মন্তব্য করেন।

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১