শতভাগ ফিট না হলে সাকিবের মাঠে নামার সুযোগ নেই: ডমিঙ্গো

ক্রীড়া ডেস্ক : চার দিন আগে কোভিডে আক্রান্ত হওয়ায় সাকিব আল হাসানকে চট্টগ্রাম টেস্ট থেকে সরিয়ে নিয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) । কিন্তু শুক্রবার তিন বার কোভিড টেস্টে নেগেটিভ আসায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে তাকে পাওয়ার সম্ভাবনা জেগেছে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় দলের সঙ্গে যোগ দেবেন সাকিব। শনিবার দলের সঙ্গে অনুশীলনেও নামার কথা রয়েছে। কিন্তু এক সেশন অনুশীলন করেই কি পাঁচ দিনের খেলা খেলতে মাঠে নামবেন সাকিব? বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বাঁহাতি অলরাউন্ডারের ওপর সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা দিয়েছেন। তবে প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বলছেন, শতভাগ ফিট না হলে সাকিবের চট্টগ্রামে মাঠে নামার সুযোগ নেই।

শুক্রবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে সাকিবকে নিয়ে ডমিঙ্গো বলেছেন, ‘এটা খুব কঠিন (৬০-৭০ ভাগ ফিট হলেও খেলানো)। টেস্ট ক্রিকেট কঠিন। খেলা এবং অনুশীলনের মধ্যে না থেকে হুট করে এসে খেলা আরো কঠিন। এর ওপরে কোভিড থেকে সেরে উঠেছে। এটা টি-টোয়েন্টি বা ওয়ানডে ম্যাচ নয়। এখানে প্রায় ৬ ঘণ্টা মাঠে থাকতে হয়। অনেকটা সময়, পুরো পাঁচদিনই। এসব বিষয় অবশ্যই বিবেচনায় আনতে হবে। অবশ্যই আমরা তাকে পেতে চাই। সর্বকালের অন্যতম সেরা একজন ক্রিকেটার সে।’

দলের সেরা ক্রিকেটার সাকিব। ব্যাটিং, বোলিং দুই বিভাগেই তাকে দায়িত্ব নিতে হয়। ব্যাটিং করতে হবে ৬-৭ নম্বরে। বোলিংয়ে হাত ঘুরাতে হবে অন্তত ১৫-২০ ওভার। সঙ্গে ফিল্ডিং তো আছে। চট্টগ্রামে শেষ দুটি টেস্টই পাঁচ দিনে গেছে। ফ্ল্যাট উইকেটে এবারও খেলা হবে। বৃষ্টির বাগড়ায় না পড়লে এই টেস্টও পাঁচ দিনে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। সেক্ষেত্রে সাকিব খেললে কঠিন পরীক্ষার মুখোমুখি হবেন। তবে তাকে পরীক্ষায় না ফেলে পারফর্মের সুযোগ দিতে চান ডমিঙ্গো। দক্ষিণ আফ্রিকান কোচ বলেছেন, ‘আমাদের নিশ্চিত করতে হবে সে যেন তার পারফর্ম করার সকল সুযোগ পায়। আমাদের দেওয়া ভূমিকায় সে যেন ঠিকঠাক পারফর্ম করতে পারে সেদিকে আমাদের খেয়াল রাখতে হবে। একদিনে তাকে অন্তত ১৫ ওভার বোলিং করতে হবে। ব্যাটিংয়ে টপ সিক্স বা সেভেনে ব্যাটিং করতে হবে এবং তিন বা চার ঘণ্টা ব্যাটিং করতে হবে। এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ।’

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন ডমিঙ্গো। নিজের অভিজ্ঞতা থেকে সুস্থ হতে সময়ের প্রয়োজন দাবি করে তিনি বলেছেন, ‘আমারও কোভিড হয়েছিল। আমি জানি কতটা খারাপ অভিজ্ঞতা হয় এবং শরীরে শক্তি পাওয়া যায় না। কোভিড থেকে সেরে ওঠার পর শারীরিকভাবে পুরোপুরি সুস্থ হতে সময়ের প্রয়োজন। আমাদের এসব বিবেচনায় আনতে হবে।’ শুধু ব্যাটিং বা বোলিং নিয়ে সাকিবের ফিটনেস পরীক্ষা হবে তা জানিয়েছেন ডমিঙ্গো, ‘নিশ্চিতভাবেই তার ফিটনেস পরীক্ষা করতে হবে। কোভিড থেকে সেরে উঠেছে মাত্র এবং খুব বেশি ক্রিকেট কিন্তু খেলেনি। ও অবশ্যই আমাদের জন্য বড় খেলোয়াড়, যে দলে ভারসাম্য নিয়ে আসে। তাকে আগামীকাল আমরা দেখব। দুই তিন-সপ্তাহেরও বেশি সময় হয়ে গেছে ও ব্যাটিং বা বোলিং কিছু করেনি। হঠাৎ করে এসে পাঁচ দিনের টেস্ট ম্যাচ খেলা কঠিন এবং পারিপার্শ্বিক অনেক কিছু চিন্তা করতে হবে। আমরা তাকে আগামীকাল পরীক্ষা করে দেখব।‘

‘যে কোনো দিনেই যে কেউ ফুল ফিট সাকিবকে তার দলে পেতে চাইবে। ৫০ বা ৬০ ভাগ ফিট একজন খেলোয়াড়কে টেস্ট ম্যাচ খেলানো কঠিন। পারফর্ম করার সুযোগ দেওয়ার জন্য একজন খেলোয়াড়কে পুরোপুরি ফিট হতে হবে।’– যোগ করেন ডমিঙ্গো। এদিকে ডমিঙ্গো কথা বলার আগে সাকিব ইস্যুতে বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, ‘হয়তো ও খেলবে, হয়তো খেলবে না। বলা মুশকিল। এটা ওর নিজের, দলের ও অনেক কিছুর ওপর নির্ভর করে। টি-টোয়েন্টি, ওয়ানডে হলে বলতাম খেলো। কিন্তু এটা তো টেস্ট। আমরা চাই না ওর ওপর বাড়তি বোঝা হোক বা ক্ষতির কারণ হোক। ওকে স্বাধীনতা দেওয়া আছে। ও যদি খেলতে চায় অবশ্যই খেলবে। ওকে তো না করার কোনো সুযোগ নেই। অনুশীলন করুক, অনুশীলন করে যদি মনে করে খেলতে পারবে এবং ফিটনেস ট্রেনার যদি ছাড়পত্র দেয়, তাহলে খেলবে।’

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১