শহীদ কামারুজ্জামান হেনার সমাধীতে জুতা পায়ে নবনিযুক্ত অধ্যক্ষের পুষ্পস্তবক অর্পন

ক্যাপশন: ছবিতে জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান হেনার সমাধীতে জুতা পায়ে পুষ্পস্তবক অর্পন করেছেন সরকারি নিউ গভঃ ডিগ্রি কলেজের নবনিযুক্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর কালাচাঁদ শীলসহ কলেজের শিক্ষকবৃন্দরা।
ক্যাপশন: ছবিতে জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান হেনার সমাধীতে জুতা পায়ে পুষ্পস্তবক অর্পন করেছেন সরকারি নিউ গভঃ ডিগ্রি কলেজের নবনিযুক্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর কালাচাঁদ শীলসহ কলেজের শিক্ষকবৃন্দরা।

এহেসান হাবীব তারা : মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান হেনার সমাধীতে জুতা পায়ে পুষ্পস্তবক অর্পন করেছেন সরকারি নিউ গভঃ ডিগ্রি কলেজের নবনিযুক্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর কালাচাঁদ শীলসহ কলেজের শিক্ষকবৃন্দরা। ডিগ্রি কলেজের নবনিযুক্ত অধ্যক্ষর পুষ্পস্তবক অর্পনের এমন ছবিগুলো ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে বিভিন্ন মহলে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।
জানা গেছে, গত৫ অক্টোবর সকালে মহানগরীর কাদিরগঞ্জে শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান হেনার প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি জানাতে তার সমাধীতে ফুলের তোড়া নিয়ে যান সরকারি নিউ গভঃ ডিগ্রি কলেজের নবনিযুক্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর কালাচাঁদ শীলসহ কলেজের শিক্ষকবৃন্দরা। এসময় অধ্যক্ষ প্রফেসর কালাচাঁদ শীলসহ কলেজের শিক্ষকবৃন্দরা সকলেই শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান হেনার সমাধীতে জুতা পায়ে দিয়ে দাড়িয়ে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন। এ সময় তাদের জুতা পায়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে, ফটোশেসন করতেও দেখা যায়।


এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন ডিগ্রি কলেজের উপাধ্যক্ষ মো: অলীউল আলম,বাংলা বিভাগ এর বিভাগীয় প্রধান মো: কামরুজ্জামান, গণিত বিভাগ এর সহকারী অধ্যাপক এ.কে.এম নুরুজ্জামান ,উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগ এর সহযোগী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান মো: মজিদুল হক, প্রাণীবিজ্ঞান বিভাগ এর সহকারী অধ্যাপক জিয়াউর রহমান, বাংলা বিভাগ এর প্রভাষক মো: মেহেদী হাসান , ইংরেজি বিভাগ এর প্রভাষক প্রশান্ত কুমার ঘোষ ,ইংরেজি বিভাগ এর প্রভাষক খালেদা ইয়াসমিন , হিসাববিজ্ঞান বিভাগ এর সহকারী অধ্যাপক কবিতা সান্যাল , ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ এর সহকারী অধ্যাপক আকিকুন নাহার ।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে অধ্যক্ষ কালা চাঁদ শীল বলেন,এটা অসতর্কতায় হয়েছে,আমি দুঃখীত,আমি ক্ষমা প্রার্থী, জাতির কাছে ক্ষমা চান কিনা এমন প্রশ্ন করলে তিনি এড়িয়ে জানতিনি।

একই বিষয়ে উপাধ্যক্ষ ওলিউল আলমের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন”এটা অধ্যক্ষ মহোদয়ের নেত্রীত্বে হয়েছে। উনাকে প্রশ্ন করলে উত্তর পেয়ে যাবেন। এখানে তেমন কনো গাইড ছিলোনা। দেশের এমন বিশিষ্ট জনের কবরে শ্রোদ্ধা নিবেন করতে কি গাইড লাগে এমন শ্রদ্ধা নিবেদন আগে কখনো করেছেন কিনা প্রতিবেদক জনতে চাইলে তিনি বলেন, নির্দেশনা মেনে দুএকবার গেছি। আর গত ৫ অক্টোবরের বিষয়টি আমার অধ্যক্ষের জন্য এটা ভুল হয়েছে বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি নূর মোহাম্মদ সিয়াম বলেন, বিষয়টা আমি আগেও শুনেছি,এটা খুবই দুঃখ জনক, শিক্ষকরা জাতির মেরুদণ্ড, তারা এমন ভুল কেমন করে করে তা আমাদের বোধগম্য নয়,অবশ্যই তাদের ক্ষমা প্রার্থনা করতে হবে,নয়তো ছাত্রলীগ ব্যাবস্থা গ্রহন করবে।

সামাজিক সংগঠন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন-বাপা রাজশাহী জেলা কমিটির সভাপতি ও রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জামাত খান বলেন, এ ধরণের কাজ অত্যন্ত দুঃখজনক, স্বাধীনতা বিরোধী মনোভাব নিয়েই কাজটি তিনি করেছেন। আসলে সত্যি কি যে কোন পবিত্র জায়গাতে কোনো ভাবে অপবিত্র করা যাবে না সুতরাং এমন ঘটনার তিব্র নিন্দা জানান তিনি।

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্রশনিরবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১