শাস্তিস্বরুপ ৯ বছরের শিশুর ঘাড়ে ১৫০ কেজির মানুষ, অতঃপর…

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কিছুতেই কথা শুনছে না ৯ বছরের ডেরিকা লিন্ডসে। শাসন করতে বাবা মা ডেকে পাঠালেন পাশের বাড়ির আত্মীয় ভেরোনিকা গ্রিন পসিকে।আর তারপর? ৬৪ বছরের ভেরোনিকা প্রথমে স্কেল আর ধাতব পাইপ দিয়ে মেরে ডেরিকাকে শায়েস্তা করার চেষ্টা করেন। তাতে সে ছুটে যায় একটা আরাম কেদারার দিকে। তাকে কোণঠাসা করে ফেলে ভেরোনিকা ওই আরাম কেদারায় তার ওপর চড়ে বসেন। ভেবেছিলেন, এতেই বেয়াদব ৯ বছরের বালিকার যথেষ্ট শাস্তি হবে। তাঁর ওজন তো কম নয়, পাক্কা ১৫০ কেজি। এভাবেই ঘড়ি ধরে ১০ মিনিট মেয়েটির ওপর বসে ছিলেন ভেরোনিকা। তারপর ডেরিকা বলে, সে দম নিতে পারছে না। ভেরোনিকা উঠে পড়লে দেখা যায়, মারা গিয়েছে সে। ভেরোনিকাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে খুন ও শিশুর প্রতি নিষ্ঠুরতার অভিযোগ আনা হয়েছে। এ নিয়ে বিবৃতি জারি করেছে ফ্লোরিডার শিশু ও পরিবার বিভাগ। যেভাবে মেয়েটির মৃত্যু হয়েছে তা ভয়াবহ বলে ব্যাখ্যা করেছে তারা। জানিয়েছে, এই মৃত্যুর সঙ্গে জড়িতদের শাস্তি দেওয়া হবে। ১,২৫,০০০ মার্কিন ডলার বন্ডের বিনিময়ে ভেরোনিকা আপাতত জামিনে। তবে ডেরিকার বাবা মা এখনও জেলবন্দি।

 

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১