শ্রীলঙ্কায় রোহিঙ্গাদের ওপর হামলার ঘটনায় বৌদ্ধ নেতা মং জেলহাজতে

আন্তজার্তিক ডেস্ক : গত মঙ্গলবার শ্রীলঙ্কার কলম্বোয় রোহিঙ্গা শিবিরে এক হামলায় শিশুসহ ১৬ জন আহত হয়। এ হামলার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে শ্রীলঙ্কার বৌদ্ধ জাতীয়তাবাদী দলের নেতা মংকে গ্রেফতার করার পর তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ বলছে তাকে আরো জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। পুলিশ আরো বলছে শান্তির ধর্ম বৌদ্ধ ধর্ম অনুসারীদের জন্যে এ বিষয়টি লজ্জার এবং আইনবিরোধী।

আদালত রোহিঙ্গা শিবিরে হামলার জন্যে বৌদ্ধ নেতা মংকে দায়ী করেন এবং জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়। একজন পুলিশ অফিসার জানান, মং কে বৌদ্ধ ধর্মের শান্তি নষ্টের দায় নিয়ে শাস্তিভোগ করতে হবে। এ বিষয়ে ৯ অক্টোবর পর্যন্ত ৪ জন পুরুষসহ ১ জন নারীকে আটক করা হয়েছে।

পাঁচ মাস আগে শ্রীলঙ্কার সমুদ্র থেকে এইসব রোহিঙ্গাদের উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত রোহিঙ্গাদের উপর দেশটির বৌদ্ধ ধর্মাবলীদের ঘৃণা এবং নেতিবাচক মনোভাব প্রকট হয়, যেখানে উগ্র বৌদ্ধ নেতা মং প্রধান ভূমিকা পালন করেন। এক ভিডিও বার্তায় তারা রোহিঙ্গা শিবির গুড়িয়ে দেওয়ার কথা বলেন।

মিায়ানমার রাখাইন অঞ্চলে রোহিঙ্গাদের ওপর জাতিগত নিধনের কারণে দেশটির সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলমানরা গত এক মাসে বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নিচ্ছে এবং এদের সংখ্যা ৫ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, শ্রীলংকা, ভারত, সৌদি আরব, পাকিস্তান সহ বিভিন্ন দেশে আরো ১২ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা মুসলমান আশ্রয় নিয়েছে। তবে শ্রীলঙ্কায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এ ধরনের হামলার ঘটনা এই প্রথম। এ ঘটনায় আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো উদ্বেগ প্রকাশ এবং রোহিঙ্গা সংকটের দ্রুত পদক্ষেপ আশা করছে। ইয়াহু নিউজ

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০