‘হার্ভে আমাকে নৃশংসভাবে ধর্ষণ করেছিলেন’

উপচার ডেস্ক : হলিউডের প্রযোজক হার্ভে ওয়েনস্টেইনের বিরুদ্ধে একের পর ধর্ষণের অভিযোগ আসা শুরু হয়েছে। নরওয়ের অভিনেত্রী ও মডেল নাতাশিয়া মালথের পর এবার একই অভিযোগ আনলেন ইতালির বংশোদ্ভূত মার্কিন অভিনেত্রী অ্যানাবেলা সিওরা।

 

অ্যানাবেলা সিওরার অভিযোগ, ১৯৯৩ সালে তিনি হার্ভে ওয়েনস্টেইনের কাছে নৃশংসভাবে ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন।

ব্রিটিশ অনলাইন ইনডিপেনডেন্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, দ্য নিউইয়র্কার নামের একটি মার্কিন সাময়িকীকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অপরাধবিষয়ক টেলিভিশন ড্রামা সিরিজ ‘দ্য সোপরানোস’ এর জনপ্রিয় অভিনেত্রী অ্যানাবেলা হার্ভে ওয়েনস্টেইনের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করেন।

হলিউডের প্রযোজক হার্ভে ওয়েনস্টেইনের বিরুদ্ধে সম্প্রতি যৌন হয়রানির অভিযোগ ওঠার পর সারা বিশ্বে ঘটে যাওয়া যৌন হয়রানির ঘটনাগুলো সামনে চলে আসছে। যেসব নারী ও পুরুষ যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন, তাঁরা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে হ্যাশট্যাগ ‘#মি টু’ দিয়ে সেই তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা প্রকাশ করছেন। নারীরা হার্ভে ওয়েনস্টেইনের বিরুদ্ধে ধর্ষণসহ যৌন হয়রানির বেশ কিছু অভিযোগ করেছেন। অভিযোগকারীদের মধ্যে অ্যাঞ্জেলিনা জোলি, গিনেথ প্যালট্রো, নাতাশিয়া মালথে ও রোজ ম্যাকগোয়ানের মতো তারকারা রয়েছেন। যদিও হার্ভে সব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, সম্মতি ছাড়া তিনি কারও সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করেননি।

অ্যানাবেলা অভিযোগ করে বলেন, ১৯৯৩ সালে হার্ভের প্রযোজনায় ‘দ্য নাইট উই নেভার মেট’ সিনেমার শুটিং চলছিল। ওই ছবির শুটিং শেষেই নিউইয়র্কের বাসায় রাতের খাবারে গিয়ে হার্ভে তাঁকে ধর্ষণ করেন। হার্ভে হলিউডে একজন ক্ষমতাধর ব্যক্তি। তাই ক্যারিয়ারের ক্ষতি হবে ভেবে তিনি এত দিন এই ঘটনা প্রকাশ করার সাহস পাননি।

৫৭ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী বলেন, ‘শুটিং শেষে হার্ভে আমার নিউইয়র্কের ফ্ল্যাটে রাতের খাবারে গিয়েছিলেন। রাতের খাবার শেষ হলেও তিনি চলে না গিয়ে বসে ছিলেন। এক সময় তিনি আমাকে ধাক্কা দিয়ে বিছানায় ফেলে দেন। ধর্ষণ করার চেষ্টা করেন। ধস্তাধস্তি শুরু হয়। আমি চিৎকার করে তাঁকে কষে লাথি মারি। কিন্তু হার্ভে আমার দুই হাত আটকে ধরেন। একপর্যায়ে নৃশংসভাবে ধর্ষণ করেন।’

অ্যানাবেলা বলেন, ‘ওই ঘটনার পর আমি লজ্জায় কুঁকড়ে গিয়েছিলাম। যদিও আমি কয়েকবার বাধা দিয়েছিলাম, কিন্তু পারিনি। ওই ঘটনার এত বছর পরও হার্ভে আমাকে নানাভাবে হয়রানি করে আসছেন। একবার একটি অনুষ্ঠানে হার্ভে আপত্তিকর অবস্থায় আমার হোটেলের কক্ষে ঢুকে পড়েছিলেন।’

এ বিষয়ে হার্ভে ওয়েনস্টেইনের মুখপাত্র সালি হফমিস্টার বলেন, এই ধরনের যেকোনো অভিযোগ হার্ভে অস্বীকার করেছেন। কারণ সম্মতি ছাড়া তিনি কারও সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করেননি।

এদিকে দ্য নিউইয়র্কার সাময়িকীকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ডারিল হানাও একই অভিযোগ করেছেন। তিনি বলেন, হার্ভে বেশ কয়েকবার তাঁকে ধর্ষণের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছেন। এ কারণে হার্ভে প্রায় সময় তাঁর হোটেলের কক্ষে আসতেন। একবার কক্ষে একজন মেকআপ আর্টিস্ট থাকায় তিনি হার্ভের হাত থেকে বেঁচে গিয়েছিলেন।

 

হলিউডের প্রযোজক হার্ভে ওয়েনস্টেইন। ছবি: রয়টার্স
এর আগে গত বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে এক সংবাদ সম্মেলনে হার্ভে ওয়েনস্টেইনের বিরুদ্ধে নরওয়ের অভিনেত্রী নাতাশিয়া এ অভিযোগ করেন, ২০০৮ সালে লন্ডনে একটি হোটেলের কক্ষে হলিউডের প্রযোজক হার্ভে ওয়েনস্টেইনের কাছে তিনি ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন।

গত মঙ্গলবার হার্ভের সাবেক প্রযোজনা সহকারী মিমি হ্যালেই একই ধরনের অভিযোগ করেছেন। মিমির অভিযোগ, ২০০৬ সালে তাঁর বাড়িতেই হার্ভের কাছে তিনি যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন। তিনি বলেন, ‘আমি তাঁকে কয়েকবার না করেছিলাম। তারপরও তিনি জোর করে নির্যাতন করেন। তবে তিনি ধর্ষণ করতে পারেননি। আমি লজ্জায় কুঁকড়ে গিয়েছিলাম।’

যৌনতার অভিযোগে ৬৫ বছর বয়সী হলিউডের প্রযোজক হার্ভে ওয়েনস্টেইনের বিরুদ্ধে লন্ডন, নিউইয়র্ক ও লস অ্যাঞ্জেলেসে তদন্ত শুরু হয়েছে। এ ছাড়া তাঁর দ্য ওয়েনস্টেইন কোম্পানির (টিডব্লিউসি) বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে। তাঁর বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত প্রায় ৬০ জন নারী ধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন।

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০