১৪ দিনের লকডাউন শেষ- চাঁপাইনবাবগঞ্জে সংক্রমণের হার নিম্নগামী

১৪ দিনের লকডাউন শেষ- আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জে সংক্রমণের হার নিম্নগামীচাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি : আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসনের দেয়া টানা ১৪ দিনের লকডাউন শেষ হয়েছে। এরই প্রেক্ষিতে ৭ জুন সোমবার রাত ১২ টা থেকে ১৬ জুন রাত ১২ টা পর্যন্ত করোনা পরিস্থিতি উত্তরণে নতুন বিধিনিষেধ জারি করেছে জেলা প্রশাসন। সোমবার বিকেলে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে প্রেসব্রিফিং এর আয়োজন করে এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটি ও সুশীল সমাজের সূধীজনদের সম্মতিক্রমে লকডাউন তুলে নতুন বিধিনিষেধ আরোপের উপর মত দেন। সরকারি নিয়মের পাশাপাশি জেলার দেয়া বিধিনিষেধ পালন করতে নাগরিকদের আহবান জানানো হয়েছে। এ ছাড়াও মানুষকে সচেতন করতে এবং স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে গণমাধ্যম কর্মীদের ভূয়সী প্রশংসা করা হয়।

জেলা প্রশাসন ঘোষিত নতুন বিধিনিষেধ হচ্ছে –
সব ধরনের শপিং মল স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত চালু থাকবে। তবে ক্রেতা বিক্রেতাকে অবশ্যই মাস্ক পরিধান করতে হবে। সংশ্লিষ্ট মার্কেট কমিটি সংশ্লিষ্ট দোকানের মালিক তার অংশে উক্ত শারীরিক দূরত্ব ও মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করবেন। মোটরসাইকেল চালক ছাড়া অন্য কোন ব্যক্তি চলতে পারবে না। ব্যাটারিচালিত অটো গাড়িতে ২ জন যাত্রী যাতায়াত করতে পারবে। দুজনের বেশি নয়। চালকসহ ৩ জন। সব ধরনের সাপ্তাহিক হাট আগামি ১৬ জুন বুধবার পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। তবে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রবাদীর দোকান ও মনিহারি দোকান গুলো সকাল ৯ টা থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত খোলা থাকবে।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে আম ক্রয়-বিক্রয় ও পরিবহন চালু থাকবে। তবে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর, শিবগঞ্জ, গোমস্তাপুর, নাচোল, ভোলাহাট উপজেলায় অবস্থিত বৃহত্তম আম বাজার সমূহ এর নিকটস্থ স্টেডিয়াম/কলেজ/স্কুল মাঠে স্থানান্তর করতে হবে। উপজেলা প্রশাসন এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। জনসমাবেশ ও রাজনৈতিক ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান, পিকনিক, জন্মদিন অনুষ্ঠান বন্ধ থাকবে। খাবারের দোকান ও হোটেল রেস্তোরায় সকাল ৬ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত খাদ্য বিক্রয় ও সরবরাহ করতে পারবে। হোটেলে বসে খাওয়া যাবে না।

জেলার মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন আসন সংখ্যা অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করতে পারবে। মাস্ক ছাড়া যাত্রী উঠালে চালক, হেলপার ও যাত্রীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। শিল্প-কারখানা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় চালু থাকবে। কৃষিকাজ ও নির্মাণ কাজের সাথে জড়িত শ্রমিকগণ স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত নির্মাণ কাজ মাস্ক পরে চালাতে পারবে। স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে মসজিদের জুমার নামাজ ও ওয়াক্তের নামাজ পড়া যাবে। তবে ২০ জনের অতিরিক্ত মুসল্লি নিয়ে নামাজ পড়া যাবেনা।

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০