গোদাগাড়ীর কাকনহাট পৌরসভায় নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে সড়ক নির্মাণের অভিযোগ

সারোয়ার সবুজ : রাজশাহী গোদাগাড়ী উপজেলায় কাকনহাট পৌরসভার বাসষ্টান্ড থেকে রেলষ্টেশন সড়কটি নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। নির্মিত সড়কটিতে ব্যাবহৃত করা হচ্ছে নিম্নমানের খোঁয়া,এবং ইট। সড়কটির নির্মাণকাজের জন্য স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর ৪০০ মিটার সড়কের কাজের জন্য ৬০ লাখ টাকা ব্যয়ে টেন্ডারের মাধ্যমে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ভাবনা এন্টারপ্রাইজের সাথে কাজের চুক্তি করেন।

প্রায় ২ মাস আগে কাকনহাট পৌরসভার মেয়র আতাউর রহমান খান এই কাজের উদ্বোধন করলে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ঐ সড়কের নির্মাণকাজ শুরু করে। ইতিমধ্যেই কাজটি খুব নিম্নমানের হওয়ায় গত ১৫ জুলাই বৃহস্পতিবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা গিয়েছে অনিয়মের চিত্র।অনিয়মের বিষয়ে কথা বললে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার আসাদ এই প্রতিবেদককে জানান,ভালো মানের সামগ্রী দিয়েই কাজ চলছে।এতে কিছু করার নেই।যেখানেই অভিযোগ দেন কাজ হবেনা। কারন এই রাস্তার কোন বাজেট ই হয়নি।

এলাকাবাসী জানান, সড়কের কাজের উপকরণগুলো একেবারেই নিম্নমানের এবং কাজ এখনো শেষ হতে অনেক সময় বাকি আছে।আমরা চাই ভালো কাজ।এখনি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা এ বিষয়ে কোন ব্যাবস্থা গ্রহণ না করলে এই রাস্তার কাজ খারাপ সামগ্রী দিয়েই শেষ হয়ে যাবে।আর ভোগান্তি পোহাতে হবে আমাদের সাধারণ জনগনকে। এপ্রসঙ্গে কাকনহাট পৌর মেয়র আতাউর রহমানের সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য পৌরসভায় গেলে সাংবাদিকের উপস্থিতি টের পেয়ে গা- ঢাকা দেন তিনি

এ বিষয়ে কাকনহাট পৌরসভার প্রকৌশলী সাইফুল্লা বলেন,আমি গত পরশুদিন ই ওই সড়কের কাজটি দেখতে গিয়েছিলাম। যেসব সামগ্রী দিয়ে কাজ করা হচ্ছে সবই ঠিক আছে এবং ভালো। তবে নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে সড়ক নির্মানের বিষয়টি যদি সত্য হয় তবে যথাযথ ব্যাবস্থা গ্রহণ করে ভালো মানের নির্মান সামগ্রী দিয়ে কাজ শেষ করা হবে।

এবিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী সাদরুল ইসলামের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান,রাস্তার কাজ সম্পন্ন হতে এখনো দেরি আছে।পুরানো রাস্তার মালামাল যেহেতু ফেলে দেওয়ার নিয়ম নেই তাই সেগুলো দিয়েই লেয়ারে রোলারের কাজ চলছে।আর রাস্তার দুই পাশে যে ইটের বেরিক্যাড দেওয়া হয় সেগুলো ১ নং ইট দেওয়ার কথা।২ নং ইট দিয়ে কাজের বিষয়টি আমার জানা নেই,তবে আমি দেখবো।

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১