লিটনের ক্যারিয়ার বাঁচানো সেঞ্চুরি, টাইগারদের বড় স্কোর

ক্রীড়া ডেস্ক : সর্বশেষ পাঁচ ওয়ানডেতে তিনবার শূন্য রানে আউট হয়েছেন। নিউজিল্যান্ড সফরে তিনটি ম্যাচের টি ২০ সিরিজে তার রান ছিল মাত্র ১০। ঘরের মাটিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে শূন্যতে আউট হওয়ার পর লিটনকে নিয়ে নতুন করে সমালোচনা শুরু হয়। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে খেলতে নেমে ২৫ রান করার পর তৃতীয় ওয়ানডেতে বাদ পড়েন।

বাজে পারফরম্যান্সের কারণে একাদশ থেকে বাদ পড়াটা ছিল কেবলই সময়ের ব্যাপার। জিম্বাবুয়ের নির্বাচিত একাদশের বিপক্ষে একদিনের প্রস্তুতি ম্যাচে মাত্র ২ রান করে আউট হওয়ার পর তাকে না রাখাটা অনেকের কাছেই অবধারিত এক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছিল। নাঈম শেখ তার পরিবর্তে তামিমের সঙ্গে ওপেন করবেন আর উইকেটরক্ষক হিসেবে খেলতে পারেন নুরুল হাসান সোহান- এমন ভাবনা অনেকের মনেই জুড়ে বসেছিল। তবে টসের পর দেখা গেল একাদশে লিটন যথারীতি আছেন এবং তামিমের সঙ্গে ওপেনিং করতে নেমেও গেলেন।

তামিম কোনো রান না করেই ফিরলেন সাজঘরে, ক্রিজে যাওয়ার পর থেকে শট খেলতে থাকা সাকিব আল হাসান ১৯ রানের বেশি করতে পারলেন না। চরম বাজে শট খেলে মিঠুনও ১৯ রান করে উইকেটরক্ষক চাকাভার গ্লাভসে ক্যাচ দিয়ে ফিরে দলের বিপদ বাড়ান। রিচার্ড এনগারাভার বলে কিপারকে সহজ ক্যাচ দিয়ে ৫ রান করে ফেরেন ব্যর্থ মোসাদ্দেক। তারপর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে নিয়ে শক্ত প্রতিরোধ গড়ে শুধু নিজের ক্যারিয়ারই নয়, দলকেও বিপদ থেকে বাঁচালেন আর চাপের মুখে তুলে নিলেন দারুণ এক সেঞ্চুরি।

শুক্রবার (১৬ জুলাই) হারারেতে অনুষ্ঠিত ম্যাচে টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে ৭৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল বাংলাদেশ। ওপেনার লিটন দেখছিলেন সতীর্থদের আসা-যাওয়ার মিছিল। তবে পঞ্চম উইকেটে তার সঙ্গে ক্রিজে জমে গেলেন রিয়াদ। পঞ্চম উইকেটে ৯৩ রানের মহামূল্যবান জুটি হওয়ার পর রিয়াদ ৩৩ রান করে জংউইইয়ের বলে কট বিহাইন্ড হওয়ার খানিক পর সেঞ্চুরি তুলে নেন লিটন।

ম্যাচের আগে হাতে কিছুটা ইনজুরি সঙ্গী ছিল লিটনের। ফিফটি করার পর রান নিতে গিয়ে পড়ে গেলেন। মাঠে ছুটে এল ফিজিও। পড়ে যাওয়ার সময় তার শরীরের নিচে চাপা পড়ে ডান হাত। তাতে বেশ ব্যাথাই পান লিটন। খানিক পর উঠে দাঁড়িয়ে আবারো চালিয়ে যান খেলা। ১১০ বলে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এই ম্যাচে তিন অংকে পৌঁছান এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। শেষ পর্যন্ত ১১৪ বল খেলে ৮ টি চারে সাজানো ইনিংসটি ১০২ রানে থামে। পুল শট খেলা লিটন ডিপ ব্যাকওয়ার্ড স্কয়ার লেগে দ্বাদশ খেলোয়াড় ওয়েলিংটন মাসাকাদজার হাতে ধরা পড়ে বিদায় নেন। ক্যারিয়ারের চতুর্থ সেঞ্চুরি পাওয়া লিটন তিনবারই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এই কীর্তি গড়লেন।

লিটনের সেঞ্চুরি ও শেষদিকে এক চার ও ২ ছক্কার মারে আফিফ হোসেনের ৩৫ বলে করা ৪৫ ও মেহেদী হাসান মিরাজের ২৫ বলে ২৬ ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের ৬ বলে এক চারের মারে ৮ রানে অপরাজিত ইনিংসের সুবাদে ৯ উইকেটে ২৭৬ রান করে টাইগাররা। জিম্বাবুয়ের পক্ষে লুক জংউই ৫১ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট। এছাড়া দুইটি করে উইকেট পান মুজারাবানি ও এনগারাভা।

এই রকম আরও খবর দেখুন

সর্বশেষ আপডেট

অ্যার্কাইভ ক্যালেন্ডার
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১